R.B.I সদস্য ফাঁস করলেন ভয়ঙ্কর তথ্য। ২০১৬ সালে নোটবন্ধী না হলে দেশের চরম আর্থিক ক্ষতির পাশাপাশি ক্ষতি হয়ে যেত দেশের।

এবার নোট বন্দি নিয়ে সরাসরি মুখ খুললেন রিজার্ভ ব্যাংকের নির্দেশক এস গুরুমূর্তি। তিনি জানালেন যে কেন্দ্রীয় সরকারের নোট বন্দি করার সিদ্ধান্ত ছিল জনকল্যাণমূলক, দেশপ্রেমিক এবং একেবারে সঠিক সিদ্ধান্ত। তিনি আরো বলেন তিনি বলেন যে 2016 সালে যদি সঠিক সময়ে নোটবন্দি না করা হতো তাহলে ভারতের অর্থ ব্যবস্থা পুরোপুরি ভাবে ভেঙ্গে পড়ত। তিনি জানিয়েছেন যে 8.4 লক্ষ কোটি টাকার 500 এবং 1000 টাকার নোট হয়ে গিয়েছিল ভারতে। ভারতে সবথেকে বেশি ব্যবসা হয় রিয়েলস্টেট এর জিনিসপত্র নিয়ে। আর সেখানে মাত্র 500 এবং 1000 টাকার নোট ব্যাবহার বিনিময় বড় বড় অঙ্কের রিয়েলস্টেট এবং সোনা কেনাবেচা হত।

তিনি মনে করেন যে একমাত্র নোটবন্দি করার মধ্যে দিয়েই ভারতবর্ষে অর্থ ব্যবস্থাকে টিকিয়ে রাখা সম্ভব হয়েছে। যদি সঠিক সময়ে নোট বন্দি না করা হত তাহলে ভারতের অর্থব্যবস্থা ঠেকত তালানিতে। তাছাড়াও এই দিন গুরুমূর্তি বাবু আর.বি.আই এর বিভিন্ন নিয়ম কারণ গুলি তুলে ধরেন এবং আর বি আই এর সংরক্ষিত অর্থের বেশ কয়েকটি তথ্য সকলের সামনে আনেন। তিনি ছোট এবং মাঝারি ব্যবসায়ীদের দেওয়া লোন পদ্ধতি কে আরও সহজ করার কথা জানিয়েছেন কারণ এর মাধ্যমে ভারতের অর্থ ব্যবস্থাকে আরও বেশি চাঙা করে তোলা সম্ভব হবে বলে তার মতবাদ।

তিনি এই দিন একটি বিশেষ মন্তব্য করেন রিজার্ভ ব্যাংকের উপর। তিনি জানিয়েছেন যে ভারতবর্ষের কেন্দ্রীয় ব্যাংক রিজার্ভ ব্যাংকে জমা আছে 27 থেকে 28 শতাংশ টাকা। যেটা এই বিশ্বের আর কোন দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকে নেই। যেটা বলা যায় সব থেকে বেশি। কিন্তু আপনি কখনোই বলতে পারেন না যে একটা ব্যাংকের সমস্ত টাকা দিয়ে দেয়া হোক পাবলিকের হাতে। তবে এটাও ঠিক নয় যে এক সঙ্গে কত টাকা জমা রাখা যাবে, সেই সংরক্ষণের টাকার একটা পরিমাণ তিনি জানতে চেয়েছেন। এই ব্যাপারে বিশেষ মিটিং করা হবে কয়েক দিনের মধ্যে। এমনটাই জানালেন উনি।
#অগ্নিপুত্র