fbpx
নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গমতামতরাজনৈতিক

রাজনাথ সিং এর আক্রমণ! “না থাকবে তৃণ, না থাকবে মূল।” সবাই একেবারে ধুলিস্মাৎ হয়ে যাবে।

আমাদের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বেশ কয়েকবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কে আক্রমন করতে গিয়ে বলেছেন যে, রাজনাথ সিং এর মত ব্যাক্তি কে মর্যাদা দিতে পারে না বিজেপি। আর এবার এই রাজনাথ সিং ই পরপর দুটি সভা থেকে তৃণমূল কংগ্রেস কে একেবারে তুলোধনা করে দিল। উনি তৃণমূল কংগ্রেস কে সিন্ডিকেট দল বলে সম্বোধন করে বললেন যে, “না তৃন রাহেগা, না মূল রাহেগা।”

এইদিন রাজনাথ বাবুর গলায় শোনা যায় রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির ব্যাপারে। উনি বললেন যে এই রাজ্যে গণতন্ত্র বিপন্ন, রাজ্যের আইন কানুন বলে আর কিছু বাকি নেই। পুলিশকে তৃণমূল কর্মীরা নিজেদের স্বার্থে ব্যবহার করছে ক্রমাগত, দিনের পর দিন রাজ্যে বিরোধীদের ওপর অত্যাচার চালিয়ে যাচ্ছে রাজ্যের শাসক দল। কারো কিছু কথা বলার অধিকার নেই, রাজ্যের শাসক দল যেটা চাইছে সেটাই হচ্ছে। এইসব ব্যাপারে তৃণমূল কংগ্রেস কে আক্রমণ করেন। সবশেষে জানা গিয়েছে আলিপুরদুয়ারের এবং কোচবিহারের বিজেপি নেতাকর্মীরা খুব খুশি কারণ একজন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর কাছে এই রকম আক্রমণাত্মক মনোভাব দেখার পরে।

এরপর রাজনাথ বাবু বলেন যে তৃণমূল সরকারের সহযোগিতায় পশ্চিমবঙ্গে দিনের পর দিন বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীরা প্রবেশ করছে এবং জনসংখ্যা বৃদ্ধি করছে। এই মুহুর্তের পশ্চিমবঙ্গের বেকারের সংখ্যা সর্বাধিক। এছাড়া উনার মুখে উঠে আসে নারী সুরক্ষার দিক টি। উনার দাবি যে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী একজন মহিলা সেই রাজ্যের বিরোধী দলের নারী কর্মীদের গায়ে কি ভাবে হাত তুলতে পারে শাসকদলের গুন্ডাবাহিনী? এরকম নানান প্রশ্ন তুলে এই দিনে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস কে তুলোধোনা করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রাজনাথ সিং।
#অগ্নিপুত্র

Open

Close