fbpx
নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গমতামতরাজনৈতিক

রাজ্যের গণতন্ত্রের কি হাল! ধর্ষণের পর অপমানে আত্মঘাতী বিজেপি নেতার স্ত্রী। কোথায় বিরোধীদের সুরক্ষা?

এই মুহূর্তে আমাদের রাজ্যে গুন্ডারাজ চলছে। কোথাও বিজেপির সভাতে যাওয়া লোকজনের গাড়িতে ভাঙচুর তো কোথাও বিজেপি নেতাকর্মীদের উপর অত্যাচার। এক কথায় বলা যায় রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস এইভাবে অত্যাচার করে এবং নানা রকম ভাবে ভয় দেখিয়ে রাজ্যের অন্যান্য বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের দমিয়ে রাখার চেষ্টা করছে।

আর এই সবের মাঝে উঠে এলো এক ভয়ংকর খবর। জানা গিয়েছে যে কয়েকদিন আগে ধর্ষিত হওয়া এক বিজেপি নেতার স্ত্রী এবার আত্মহত্যা করলেন। তিনি বেশ কয়েক মাস আগে তার ছেলেকে টিউশন দিয়ে রাত্রিবেলা বাড়ি ফিরছিলেন একা একা। সেই সময় সুযোগ বুঝে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা তাকে ধরে নিয়ে যায় এবং গণধর্ষণ করে। আর এর প্রেক্ষিতেই এই আত্মহত্যা বলে মনে করছে পুলিশ।

ধর্ষিতার বাড়ির লোক জানিয়েছেন যে ধর্ষণ হওয়ার পরে থানায় গিয়ে মামলা করা হয় সেই অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে এবং তাদেরকে সমর্থন করা স্থানীয় এক তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে। কিন্তু মামলা করা হলেও পুলিশের তরফ থেকে কোনো উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। উল্টে তাদের পরিবারকে বিভিন্ন ভাবে প্রাণ ভয় দেখানো হত মামলা তুলে নেওয়ার জন্য।

বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন এই জন্যই অর্থাৎ ধর্ষণ করার পরেও দোষীরা উপযুক্ত শাস্তি পেল না। উল্টে ধর্ষিতার বিরুদ্ধে নানা রকম অভিযোগ উঠতে শুরু করল। এর ফলে মানসিক অবসাদে ভুগতে শুরু করেন ওই মহিলা এবং অবশেষে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন। আর এখানেই প্রশ্ন উঠছে যেখানে বিরোধী দলের নেতা-নেত্রীদের সুরক্ষা নেই সেখানে গণতন্ত্র কি ভাবে বেঁচে রয়েছে?
#অগ্নিপুত্র

Open

Close