আমাদের কাছে এতো প্রমাণ আছে যে, আদালতে আমরাই অযোধ্যা মামলায় জিতবঃ রবিশঙ্কর প্রসাদ

মাই ইন্ডিয়া ডেস্কঃ রবিবার বিহারে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ বিজেপি দ্বারা আয়োজিত অভিনন্দন সমারোহে অযোধ্যা মামলা নিয়ে নিশ্চিত জয়ের দাবি করেন। উনি বলেন, আমাদের কাছে এতো প্রমাণ আছে যে, আমরা সুপ্রিম কোর্টে এই মামলা অবশ্যই জিতব। রনিশঙ্কর প্রসাদ বলেন, শ্রীরাম জন্মভূমির সাথে জড়িত মামলায় তর্কের সময় আমার অনেক গর্ববোধ হয়েছিল কারণ, আমি দেশের সনাতন ধর্মের প্রতীকের প্রতি একজন আইনি সেনা হওয়ার সুযোগ পেয়েছিলাম।

রবিশঙ্কর প্রসাদ বলেন, এলাহাবাদ হাইকোর্টে আমরা জয় পেয়েছি। সুপ্রিম কোর্টে মামলা চলছে। আমাদের কাছে এতো প্রমাণ আছে যে, আমরা সুপ্রিম কোর্টেও এই মামলায় জয় হাসিল করে নেব। আমি এটা প্রমাণের ভরসায় বলছি, বাকি যেটা আদালতের সিদ্ধান্ত হবে সেটা আমদের মেনে নিতে হবে। অযোধ্যা মামলায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদের বয়ানের পর বিহারের রাজনৈতিক আবহাওয়া গরম হয়ে উঠেছে। রাষ্ট্রীয় জনতা দল (RJD) আর হিন্দুস্তানি আওয়াম মোর্চা (HAM)রবিশঙ্কর প্রসাদের এই বয়ানকে দুর্ভাগ্যজনক বলে আখ্যা দিয়েছে।

এই বয়ানের পর HAM এর রাষ্ট্রীয় প্রবক্তা উপেন্দ্র প্রসাদ এটিকে দুর্ভাগ্যপূর্ণ বলেছেন। উনি বলেন, দেশের আইন মন্ত্রী এরকম বয়ান দিচ্ছেন, এটা ঠিক না। যখন কোন মামলা আদালতে চলছে তখন এরকম বয়ান দেওয়া উচিত না। আদালতের যেটা সিদ্ধান্ত হবে, সেটাই সবাইকে মানতে হবে। তিনি রবিশঙ্কর প্রসাদের এই বয়ানকে দুঃখজনক বলে আখ্যা দিয়েছেন। আরেকদিকে RJD এর বিধায়ক রাহুল তিওয়ারি এই মামলা নিয়ে বলেন, দেশের আইন মন্ত্রীকে এরকম বয়ান দেওয়া ঠিক না। যখন এই মামলা আদালতে চলছে, তখন সাংবিধানিক পদে থাকার পর আইন মন্ত্রীর এরকম বয়ান দেওয়া উচিত না।

আরেকদিকে বিজেপির সহযোগী দল তথা বিহারের শাসক দল জনতা দল ইউনাইটেড (JDU) এর মুখপাত্র রাজীব রঞ্জন বলেন, JDU আগে থেকেই বলে আসছে যে রাম মন্দির নির্মাণ নিয়ে সব পক্ষ এবং আদালতের রায়ের উপরে ভরসা করা হবে। এখন আদালতে শুনানি চলছে। আলাদা আলাদা রাজনৈতিক দলের এই মামলা নিয়ে আলাদা আলাদা স্ট্যান্ড আছে। কিন্তু আমরা মাননীয় আদালতের রায়কেই সর্বোচ্চ মানি। সবাইকে এই সিদ্ধান্তের অপেক্ষা করা উচিত।

Related Articles