বুড়োদেরই বেশি পছন্দ করত রিয়া, মহেশ ভাটের পর মুকেশ ভাটের সাথে ভিডিও ভাইরাল

পরিচালক মহেশ ভাটের (mahesh bhatt) পরে এবার তাঁর ভাই মুকেশ ভাট (mukesh bhatt)। ফের ভিডিও (video) ভাইরাল (viral) হল রিয়া চক্রবর্তীর (rhea chakraborty)। মহেশের মতো মুকেশকেও জড়িয়ে ধরে ক‍্যামেরাবন্দি হলেন তিনি। পুরনো ভিডিও সোশ‍্যাল মিডিয়ায় ফের ভাইরাল হতেই উঠেছে ট্রোলের ঝড়।

ভিডিওতে দেখা গিয়েছে কোন এক অনুষ্ঠানে মুকেশ ভাটের সঙ্গে দেখা হতেই দৌড়ে গিয়ে তাঁকে জড়িয়ে ধরলেন রিয়া। মুকেশও পাল্টা তাঁকে জড়িয়ে ধরলেন বুকে। এরপর তেমন ঘধিষ্ঠ অবস্থাতেই ক‍্যামেরার জন‍্য পোজ দেন মুকেশ ভাট ও রিয়া চক্রবর্তী। সেই ভিডিওই এখন ফের ভাইরাল হয়েছে নেটদুনিয়ায়।

ভাইরাল ভিডিওগুলি দেখেই বোঝা যাচ্ছে বলিউডে প্রবেশের সময় থেকেই ভাট পরিবারের সঙ্গে বেশ ভাল সম্পর্ক ছিল রিয়ার। সুশান্তের মৃত‍্যুর পর একাধিক ব‍্যক্তি দাবি করেছেন পরিচালকের কথা মতোই সব কাজ করতেন অভিনেত্রী। এমনকি সুশান্তের অসুস্থতা বা দুজনের সম্পর্ক নিয়ে উপদেশের জন‍্যও মহেশ ভাটের কাছে ছুটে যেতেন রিয়া।

এর আগে মহেশ ভাটের সঙ্গে রিয়ার ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল। সেখানেও ক‍্যামেরার সামনে রিয়াকে জড়িয়ে ধরে বলেছিলেন, অন‍্যরা যা ভাবে তার জন‍্য তাদেরই লজ্জা হওয়া উচিত। এমনকি মহেশ ভাটের জন্মদিনে ইনস্টাগ্রামে তাঁকে শুভেচ্ছা জানিয়ে রিয়া লেখেন, ‘আমার বুড়ো তোমাকে ভালবাসি’।

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই প্রকাশ‍্যে এসেছে মহেশ ও রিয়ার হোয়াটসঅ্যাপ চ‍্যাট। সুশান্তের থেকে দূরে সরে যেতে রিয়াকে পরামর্শ দিয়েছিলেন মহেশ ভাটই, দুজনের চ‍্যাট থেকে স্পষ্ট বোঝা গিয়েছে এ কথা। এরপর ১৪ জুন সকাল ৯:৩৫ মিনিটে প্রতিদিনের মতো পরিচালকের কাছে ‘মর্নিং কোট’ চেয়ে পাঠান রিয়া। সেই মেসেজের উত্তর দিয়ে সেদিনই দুপুর ২:৩৫ মিনিটে ফের তাঁকে ফোন করতে বলেন মহেশ ভাট।

এরপর রিয়ার ফোনে দুবার মিস কলও দেন পরিচালক। পরের দিন অর্থাৎ ১৫ জুন রিয়াকে একটি মেসেজ পাঠান। সংবাদ মাধ‍্যম সূত্রে খবর, সেই মেসেজ থেকে জানা গিয়েছে রিয়া নিজেই সুশান্তের ফ্ল‍্যাট থেকে বেরিয়ে আসেন। অথচ এর আগে জেরায় অভিনেত্রী বলেন সুশান্তের দিদি মিতু আসবেন বলে অভিনেতাই তাঁকে বলেছিলেন চলে যেতে।

এক সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ‍্যমের তরফে প্রকাশ‍্যে আনা হয় রিয়া ও মহেশের ৮ জুনের হোয়াটসঅ্যাপ চ‍্যাটের স্ক্রিনশট। রিয়াকে সেখানে বলতে দেখা যায়, ‘আয়েশা মুভ অন করছে। ভারী হৃদয় ও একটু মুক্তির আভাস নিয়ে। আমাদের শেষ ফোন কলটা আমার চোখ খুলে দিয়েছে। তুমি আমার দেবদূত। তুমি আগেও ছিলে এখনও আছো।’ উল্লেখ‍্য, আয়েশা হল মহেশ ভাট পরিচালিত ‘জলেবি’ ছবিতে রিয়ার চরিত্রের নাম।

উত্তরে মহেশ ভাট বলেন, ‘পেছনে তাকিও না। যেটা অসম্ভব সেটাকে সম্ভব করে তোলো। তোমার বাবার প্রতি আমার ভালবাসা। উনি খুশি হবেন।’ রিয়া পাল্টা বলেন, ‘কিছুটা সাহস পেয়েছি স‍্যর। সেদিন ফোনে আমার বাবার সম্পর্কে যা বললে তা আমাকে ওর জন‍্য শক্ত হতে সাহায‍্য করেছে।’