এক সময় ভারতকে লোন দিত রুশ! এবার রুশকে ১০০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ দেবে মোদী সরকার।

ভারত দেশের কারেন্সি দুর্বল হওয়ার মূল কারণ প্রচুর পরিমানে লোন নেওয়া। স্বাধীনতার পর থেকে ভারত দেশের সরকার বিভিন্ন ইস্যুতে লোন নিয়েছে। কিছু কিছু সরকার আগের লোন মেটানোর বাহানা দিয়ে নতুন লোন নিয়েছে। লোন নেওয়ার কারণে দেশের উপর চেপেছে নতুন নতুন শর্ত। ফলস্বরূপ যে দেশের মুদ্রায় সরকার লোন নিয়েছে সেই দেশের কারেন্সির তুলনায় ভারতের মুদ্রা দুর্বল হয়েছে। তবে এখন ভারত পরিবর্তন হতে শুরু করেছে। ভারত এখন লোন নেওয়ার পরিবর্তে দিতে শুরু করেছে। মালদ্বীপ ও আফ্রিকার নানা দেশকে লোন দেওয়ার পর এবার ভারত রাশিয়ার মতো দেশকেও লোন দেওয়ার ঘোষণা করে দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তার রাশিয়া সফরে গিয়ে জনকল্যাণ করার উদ্যেশে প্রকল্পগুলিকে কাজ লাগানোর ঘোষণা করেন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, “আমি বিশ্বাস করি যে আজ এই মঞ্চে আমাদের বিচারমন্থন কেবল পূর্ব নয় সমগ্র গোটা মানব জাতির মানব কল্যাণমূলক প্রচেষ্টা পরিচালিত করেছে।” জোর পাবে। প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেন যে রাষ্ট্রপতি পুতিন দু’বছর আগে আমাকে সেন্ট পিটার্সবার্গ অর্থনৈতিক ফোরামে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। ভ্লাদিভোস্টক ইউরেশিয়া এবং প্রশান্ত মহাসাগরের একটি সঙ্গম। এটি আর্টিক এবং উত্তর সমুদ্রের রুটের জন্য নতুন সুযোগ উন্মুক্ত করে। রাশিয়ার প্রায় তিন চতুর্থাংশ এশীয়। সুদূর পূর্ব এই দেশটির এশীয় পরিচয়কে শক্তিশালী করে।

 

প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেন, ভারত পূর্ব প্রাচ্যের উন্নয়নের জন্য ভারত সরকার এক বিলিয়ন ডলার  দেবে। আমার সরকার ‘এ্যাক্ট ইস্ট’ প্রকল্পের আওতায় পূর্ব এশিয়াকে সক্রিয়ভাবে অন্তর্ভুক্ত করেছে। এটি আমাদের অর্থনৈতিক কূটনীতিকেও একটি নতুন মাত্রা দেবে। প্রধানমন্ত্রী মোদী ভারত ও রাশিয়ার মধ্যে জাহাজ শিপ চালানোর পরিকল্পনার উপরেও কথা বলেন।

Related Articles