ঘুম উড়তে চলেছে ভারতের শত্রুদের! ২০২১ এর মধ্যেই ভারতের হাতে ঘাতক S-400 তুলে দিতে চলেছে রাশিয়া

মাই ইন্ডিয়া ডেস্কঃ ভারত রাশিয়ার থেকে S-400 মিসাইলের প্রথম প্রতিরক্ষা সিস্টেম ২০২১ এর মধ্যেই পেয়ে যাবে। রাশিয়ার উপ প্রধানমন্ত্রী ইউরি বোরিসোভ রবিবার জানান, S-400 বায়ু প্রতিরক্ষা সিস্টেমে প্রথমের থেকে নির্ধারিত সময়ের আগেই ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হবে। বোরিসোভ বলেন, অ্যাডভান্স পেয়মেন্ট করেছে ভারত, আগামী ১৮ থেকে ১৯ মাসের মধ্যে S-400 মিসাইল ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হবে। গত মাসে ভারতের বিদেশ মন্ত্রী এস. জয়শঙ্কর দ্বিপাক্ষিক বার্তা এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য রাশিয়ার বিদেশ মন্ত্রী লাবরোভ এর সাথে দেখা করার জন্য মস্কো গেছিলেন।

সেই সময় দুই দেশের বিদেশ মন্ত্রীদের মধ্যে S-400 নিয়ে গভীর আলোচনা হয়। আর এরপর কয়েকদিন আগেই ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দু দিনের রাশিয়া সফরে যান। সেখানে তিনি প্রতিরক্ষা এবং পারমাণবিক বিদ্যুৎ শক্তি নিয়ে রাশিয়ার সাথে চুক্তি করে। ভারতের দীর্ঘকালীন সুরক্ষার জন্য ২০১৮ সালে ১৯ তম ভারত-রাশিয়া দ্বিপাক্ষিক সন্মেলনে পাঁচটি S-400 কেনার জন্য ভারত রাশিয়ার সাথে ৫.৪৩ বিলিয়নের চুক্তি করেছিল।

গত বুধবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী রাশিয়ার Vladivostok শহরে পৌঁছান। সেখানে তিনি রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের সাথে সাক্ষাৎ করেন। এই সাক্ষাতে দুই দেশের মধ্যে অনেক চুক্তি। রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন বলে, আজ ভারতের সাথে রাশিয়া প্রতিরক্ষা, ব্যানিজ্য আর পরমাণু শক্তি এবং আর্থিক দিক থেকে কয়েকটি চুক্তি হল। আমরা ভারতীয় কোম্পানি গুলোকে রাশিয়ায় স্বাগত জানাই। ভারতের সাথে হাতিয়ার নিয়ে আমাদের অনেক ভালো সম্পর্ক। আগামী দিনে আমরা ভারতে রাইফেল আর মিসাইল সিস্টেম বানানোর পদক্ষেপ নেব।

দ্বিপাক্ষিক চর্চায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে, আগামী দিনে দুই দেশ সুপারসনিক ক্রুজ মিসাইল ব্রহ্মস মিসাইলের রেঞ্জ ২৯০ কিমি থেকে বাড়িয়ে ৬০০ কিমি করার কাজ শুরু করবে। এরফলে শুধু পাকিস্তানই না, এই মিসাইলের টার্গেটে থাকবে ভারতের সমস্ত শত্রুরা। সহজেই শত্রুদের ধ্বংস করার জন্য ভারত আর রাশিয়া এই মিসাইলকে আরও উন্নত করতে চলেছে।

ব্রহ্মস মিসাইল কম দূরত্বের রেমজেট ইঞ্জিন যুক্ত সুপারসনিক ক্রুজ মিসাইল। এই মিসাইল ডুবো জাহাজ থেকে, জাহাজ থেকে, লড়াকু বিমান এবং জমি থেকেও ফায়ার করা যায়। রেমজেট ইঞ্জিনের সাহায্যে মিসাইলের ক্ষমতা তিনগুন বেড়ে যায়। যদি কোন মিসাইলের ক্ষমতা ১০০ কিমি দূর পর্যন্ত থাকে, তাহলে এই রেমজেট ইঞ্জিনের সাহায্যে সেই মিসাইলের ক্ষমতা ৩২০ কিমি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

রাশিয়ার এনপিও মস্কোসট্রোনিয়া আর ভারতের ডিআরডিও সংযুক্ত রুপে এই মিসাইলকে বিকশিত করবে। এটা রাশিয়ার পি-৮০০ অঙ্কিস ক্রুজ মিসাইলের টেকনলজির উপর নির্ভর করবে। ব্রহ্মস মিসাইল এর নাম ভারতের ব্রহ্মপুত্র আর রাশিয়ার মস্কবা নদীর নামে রাখা হয়েছে। এই সুপারসনিক ক্রুজ মিসাইলের গতি শব্দের থেকেও তিনগুন বেশি।

Related Articles