নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনৈতিক

পাঁচ বছরে মাত্র ২৯ দিন সংসদে গিয়েছিলেন দেব, করেছেন মাত্র তিন টি প্রশ্ন।

লোকসভা ভোটের তরজায় উত্তপ্ত রাজ্য থেকে দেশের রাজনীতি। গত পাঁচবছরে কোন সাংসদ কত বেশি কাজ করেছেন তার হিসেব নিকেশ হওয়ার দিন। সাংসদদের ভালো মন্দ কাজের হিসেব বিচার করেই নির্ভর করছে আগামী লোকসভা নির্বাচনে তাঁদের টিকে থাকার বিষয়। সংসদে নাকি অনেক সাংসদই নামমাত্র উপস্থিত থাকেন, থাকলেও তেমন কিছু আসে যায় না এমন ভাব তাঁদের, এমনই একটি অভিযোগ এসেছিল অনেক দিন আগেই। যদিও সেই সমস্ত অভিযোগের কোনো রকম পরোয়া করেননা কেউই। তবে সম্প্রতি আমেদাবাদের আইআইএম নামক একটি স্বেচ্ছাসেবক সংস্থা অ্যাসোসিয়েশন ফর ডেমোক্রেটিক রিফর্মস সাংসদদের নিয়ে একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছেন। আর সেই রিপোর্টেই রাজ্যের সমস্ত তৃণমূল সাংসদদে সংসদের হিসেব নিকেশ রয়েছে।

সেই অনুযায়ী প্রথমেই রয়েছেন দেব। তবে তিনি মোটেই ভালো কাজের জন্য সেখানে স্থান পাননি। বরং, সংসদে তাঁর উপস্থিতির হার নিয়ে এক চাঞ্চল্যকর তথ্য রয়েছে। সেই তথ্যানুযায়ী সংসদে দেব এই পাঁচবছরে মাত্র 29 দিন উপস্থিত ছিলেন। শুধু তাই নয় সংসদে উপস্থিত থেকে এতদিনে মাত্র তিনটি প্রশ্ন তিনি করেছিলেন বলে জানা যাচ্ছে। অ্যাসোসিয়েশন ফর ডেমোক্রেটিক রিফর্মস-এর তথ্য অনুযায়ী উপস্থিতির দিক থেকে সবার প্রথমে আছেন দমদমের সাংসদ সৌগত রায়। মোট দুশো বিরাশি দিন সংসদে উপস্থিত ছিলেন। আর দেব সে জায়গায় মাত্র 29 দিন। তবে এই তালিকায় শুধু অভিনেতা দেব একাই নন। তাঁর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে সংসদে উপস্থিতির সংখ্যা কম রয়েছে উলুবেড়িয়ার সাংসদ সাজদা আহমেদ। তিনিও দেবের মতই মাত্র 29 দিন সংসদে উপস্থিত ছিলেন। সংসদের উপস্থিতি নীরিখে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন রানাঘাটের সাংসদ তাপস মণ্ডল মোট 279 দিন উপস্থিত ছিলেন।

আর তৃতীয় স্থানে রয়েছেন বর্ধমান-দুর্গাপুরের সংসাদ মমতাজ সংঘমিত্রা। অন্যদিকে রাজ্যের শাসকদলের অন্যতম নেতৃত্ব তথা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্ভাব্য উত্তরসূরি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়েরও সংসদে উপস্থিতি নিয়ে তেমন ভালো রেকর্ড কিন্তু নেই। এই পাঁচ বছরে মোট 93 দিন উপস্থিত ছিলেন তিনি। আর মোট 48টি প্রশ্ন করেছিলেন। সংসদে প্রশ্ন করার দিক থেকে পিছিয়ে রয়েছেন দেব। সবার থেকে এগিয়ে রয়েছেন সাংসদ সৌগত রায়, সুনীল মন্ডল ও রত্না দে নাগ। তবে শুধু যে দেবের প্রশ্ন সংখ্যা কম এমনটা কিন্তু একেবারেই নয়। অনেক সাংসদ আছেন যাঁরা নাকি সংসদে কোনো প্রশ্নই করেননি এতদিন। এমনও রিপোর্ট দিয়েছে অ্যাসোসিয়েশন ফর ডেমোক্রেটিক রিফর্মস। তথ্যানুযায়ী সংসদে প্রশ্ন করেননি এমন সাংসদের নাম মুনমুন সেন, চৌধুরি মোহন জাটুয়া, সুব্রত বক্সি, উমা সোরেন, বিজয় বর্মন সহ অন্যান্যরা।

তবে অ্যাসোসিয়েশন ফর ডেমোক্রেটিক রিফর্মস এর তথ্য প্রকাশ করার পর থেকেই বিরোধীদলে গুলি সেই তালিকাকে হাতিয়ার করে এগোতে চাইছে। বিরোধীদের একাংশের বক্তব্য , সংসদের সাংসদদের যদি এরকম হাল হয় তাহলে তাঁরা কিভাবে রাজ্যবাসীর জন্য কাজ করবে, আবার অনেকেই তাঁদের দায়িত্ব জ্ঞানহীনতার বিষয়ে প্রশ্ন তুলছে।

Close