তৃনমূলের থেকে আত্মরক্ষার স্বার্থে বিজেপি কর্মীদের হাতে ত্রিশুল ধরালেন সৌমিত্র খাঁ

 রাজ্যবাসীর কল্যাণে তৃণমূল (All India Trinamool Congress) সরকারকে উপড়ে ফেলতে মাথা ন্যাড়া করে যজ্ঞ করলেন বঙ্গ বিজেপির যুব মোর্চার সভাপতি তথা বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ (Saumitra Khan)। এর সাথে সাথে তৃণমূলের দুষ্কৃতীদের থেকে আত্মরক্ষা স্বার্থে বিজেপির কর্মীদের হাতে ত্রিশুল তুলে দেন সৌমিত্র খাঁ। তবে শাসকদল তৃণমূলের তরফ থেকে এই ত্রিশুল তুলে দেওয়ার ঘটনা নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানানো হয়েছে। আজ সকালে বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ বিষ্ণুপুর শহরের ষাঁড়েশ্বরে যান। সেখানে সৌমিত্র খাঁ সমেত মোট নয়জন বিজেপির নেতা মাথা ন্যাড়া হন। এরপর রাজ্য তথা বিশ্ব কল্যাণের খাতিরে যজ্ঞ করেন বিজেপির সাংসদ।

উনি বলেন, আমরা সবাই মিলে যজ্ঞ করে সংকল্প নিয়েছি। আগামী নির্বাচনে রাজ্য থেকে তৃণমূল সরকারকে উৎখাত করেই ছাড়ব। এছাড়াও গত পাঁচই আগস্ট রাম মন্দির ভূমি পুজোর দিনে রাজ্যে লকডাউন ডাকা নিয়ে তৃণমূল সরকারকে আক্রমণ করেন সৌমিত্র খান। তিনি বলেন, আজ আমরা শিবের কাছে প্রার্থনা করেছি। ওনার কাছে বলেছি যারা তোমার মন্দির করতে বাধা দেয়, রাম মন্দির নিয়ে আপত্তি জাহির করে, তাঁদের তুমি এবার বিদায় দাও।

জানিয়ে দিই, গত পাঁচই আগস্ট রাম মন্দিরের ভূমি পুজোর দিনে রাজ্যে লকডাউন ছিল। বহু হিন্দু সংগঠন আর বিজেপির অনুরোধের পরেও ওই দিন রাজ্য থেকে লকডাউন প্রত্যাহার করা হয় নি। আরেকদিকে, সংখ্যালঘুদের বিশেষ অনুরোধে রাজ্যে লকডাউন তুলে দেওয়া হয়েছিল। এমনকি তৃণমূলের ছাত্র সংগঠনের দাবিতে ২৮ আগস্ট ছাত্র সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা দিবসেও লকডাউন প্রত্যাহার করা হয়েছে।