সবাইকে ছেড়ে চলে গেলেন বাঙালির প্রিয় অভিনেতা তথা প্রাক্তন তৃণমূল সাংস তাপস পাল

0
160

তাপস পালের প্রথম সিনেমা আসে ১৯৮০ সালে, তরুণ মজুমদার পরিচালিত দাদার কীর্তি চলচ্চিত্রে। তিনি ভালোবাসা ভালোবাসা এবং গুরুদক্ষিণা ইত্যাদি অন্যান্য অনেক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন।

আজ সকালে মম্বাই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেতা তথা প্রাক্তন সাংসদ তাপস পালের মৃত্য হয়। ৬১বছরে তার মৃত্যু হলো।

তাপস পাল (Tapas Paul) (জন্ম ১৯৫৮) হচ্ছেন একজন বাঙালি অভিনেতা ছিলেন জন্ম ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায়। তিনি ২০০৯ সালের ভারতীয় সাধারণ নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেস থেকে টিকেট নিয়ে নির্বাচিত হয়ে কৃষ্ণনগর থেকে এমপি হন।

জন্ম ২৯ সেপ্টেম্বর ১৯৫৮ মৃত্যু ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ (বয়স ৬১)

মুম্বই থাকতেন বেশ কয়েক বছর পেশা অভিনেতা সাফল্য অর্জন করেন রাজনীতিক কার্যকাল ১৯৮০-বর্তমান দাম্পত্য সঙ্গী নন্দিনী পাল সন্তান সোহিনী পাল

২০১৪ সালে, কেন্দ্রীয় সরকারের নির্বাচনের কিছুদিন আগে একটি নির্বাচনী প্রচার সভায় বক্তৃতা দিতে গিয়ে তাপস পাল বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন। উক্ত সভায় তিনি নিজেকে “চন্দননগরের মাল” বলে পরিচয় দেন এবং জানান যে তিনি পকেটে “মাল” নিয়ে ঘুরে বেড়ান। এছাড়া তিনি ছেলে পাঠিয়ে বিরোধী পক্ষের সমর্থকদের ধর্ষণ করে দেওয়ার ইচ্ছাও প্রকাশ করেন। পরে এই নিয়ে বিতর্ক তৈরী হলে তিনি প্রকাশ্যে ক্ষমা চান।

২০১৬ সালের শেষ ভাগে তাপস পাল আবার সংবাদ শিরোণামে আসেন। রোজ ভ্যালি নামে একটি চিট ফান্ডের সাথে যুক্ত থাকার অভিযোগে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। এই সময়ে তাকে একটি পরচুলা পড়তে দেখা যায় যা সম্ভবতঃ তিনি তার বিখ্যাত ছবি মেজ বউ তে পড়েছিলে। আজ তার মৃত্যুতে সিনেমা জগতে শোকের ছাঁয়া।