বিজেপি নেতার জোরদার দাবি ২০২১ শে পশ্চিমবঙ্গ থেকে চিরতরে বিদায় নেবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

উত্তরপ্রদেশে বিজেপি রাজ্য সদর দপ্তরে একটি বৈঠক হয় উত্তরপ্রদেশ বিজেপির তরফ থেকে। এবং সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন উত্তরপ্রদেশের উপমুখ্যমন্ত্রী দীনেশ শর্মা। এবং সেখান থেকে তিনি জোরদার দাবি করেন যে ২০২১ সালে পশ্চিমবঙ্গে একেবারে ধুলিস্যাৎ হয়ে যাবে তৃণমূল কংগ্রেস এবং পশ্চিমবঙ্গের সরকার গঠন করবে ভারতীয় জনতা পার্টি। এছাড়াও এই দিন উনি দাবি করেন যে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গের ৪২ টি আসনের মধ্যে ২৩ টি আসন দখল করবে বিজেপি এবং তৃণমূল সেখানে বিজেপির ধারে কাছেও আসতে পারবে না বলে তার অভিমত।

এছাড়া ওই দিন তিনি পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সরকার তৃণমূল কংগ্রেসের সমালোচনা করে বলেন যে এই মুহূর্তে কোনো রকম গণতন্ত্র নেই পশ্চিমবঙ্গে। প্রশাসনকে পুরোপুরি ভাবে নিজেদের হয়ে কাজে লাগাচ্ছে রাজ্য সরকার। তাই পুলিশকে নিজেদের সঠিক কাজ করতে দিচ্ছেন না। এই প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন যে এর ফলে রাজ্যের অন্যান্য বিরোধিরা সভা করতে পারে না। তাই অমিত শাহের সভা হওয়ার পর রাজ্যে বিজেপি কর্মীদের ওপর অত্যাচার হয়েছে, কিন্তু এর বিরুদ্ধে রাজ্য সরকার কোন রকম ব্যবস্থা নেয়নি।

তিনি এইদিন বলেন যে পশ্চিমবঙ্গে গণতন্ত্র ফেরাতে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের প্রচারে রাজ্যে আসতে চলেছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। আর পুরো পশ্চিমবঙ্গবাসী অপেক্ষায় রয়েছেন হিন্দু ধর্মের পোষ্টার বয় যোগী আদিত্যনাথ এর ভাষণ শোনার জন্য। এবং সেই সাথে তিনি বলেন যে প্রয়োজন পড়লে আমি নিজে পশ্চিমবঙ্গে সভা করব এবং পশ্চিমবঙ্গের মানুষকে তৃণমূলের অসামাজিক কাজকর্ম গুলি দেখিয়ে তাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর সাহস জোগাবো।
#অগ্নিপুত্র