বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন তৃণমূলের দাপুটে বিধায়ক তথা মন্ত্রী, চলছে জোর জল্পনা

 তৃণমূলের (All India Trinamool Congress) থেকে অনেকদিন ধরেই দূরে সরে যাচ্ছে শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। আর এই নিয়ে রাজ্যের রাজনৈতিক মহলে নানান গুঞ্জনও চলছে। এই সুযোগ হাতছাড়া করতে চাইছে না বঙ্গ বিজেপি। নন্দীগ্রামের সভা মঞ্চ থেকে শুভেন্দু অধিকারীর বিস্ফোরক মন্তব্যের পর বিজেপি আরও বেশি করে শুভেন্দুকে নিয়ে মাথা ঘামাচ্ছে। আর এরমধ্যেই বঙ্গ বিজেপির যুব মোর্চার সভাপতি সৌমিত্র খাঁয়ের (Saumitra Khan) মন্তব্য ঘিরে নতুন করে তৈরি হয়েছে জল্পনা।

বিজেপির সাংসদ তথা বঙ্গ বিজেপির যুব মোর্চার সভাপতি সৌমিত্র খাঁ রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী তথা তৃণমূলের দাপুটে বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারীকেকে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। এখন প্রশ্ন উঠছে যে, তাহলে শুভেন্দু কি সত্যিই এবার তৃণমূল ছেড়ে গেরুয়া শিবিরে যাচ্ছেন? এখানে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা মুকুল ফ্যাক্টরকে প্রাধান্য দিচ্ছে বেশি। সুত্র থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী, শুভেন্দুকে বিজেপিতে নিয়ে আসার জন্য বড় ভূমিকা পালন করছেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়।

জানিয়ে দিই, আজ সকালে নিজের সংসদীয় এলাকা বিষ্ণুপুরে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অরবিন্দ মেননের সাথে ছিন্নমস্তকা মন্দিরে পুজো দেন সৌমিত্র খাঁ। সেখানে তিনি সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ‘রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর মন্তব্যে স্পষ্ট যে, বাংলার স্বার্থে এবার পরিবর্তনের প্রয়োজন। উনি মানুষের হয়ে কাজ করতে চান। আমরাও মানুষের হয়ে কাজ করি। তাই আমরা চাই, উনি দেরি না করে যেন বিজেপিতে চলে আসেন।”

বিজেপির সাংসদের এই মন্তব্যের পর নতুন করে জল্পনা সৃষ্টি হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। একদিকে তৃণমূলের সাথে দিনদিন শুভেন্দু অধিকারীর দূরত্ব বেড়েই চলেছে, আরেকদিকে শুভেন্দু অধিকারীর একের পর এক বিস্ফোরক মন্তব্য ঘিরে চরম অস্বস্তিতে তৃণমূল। যদিও, দুই পক্ষের তরফ থেকে এখনো কারুকে কারোর বিরুদ্ধে কথা বলে শোনা যায়নি। তবে এই সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে মরিয়া গেরুয়া শিবির।