দোলের আগে গেরুয়া আবির মেখে ফেসবুকে পোস্ট দাপুটে তৃণমূল নেতার! শহর জুড়ে জোর জল্পনা

0
162

গেরুয়া আবির মেখে তৃণমূল নেতার ছবি পোস্ট ফেসবুকে। পুরভোটের আগে বিজেপি যোগের জল্পনা বিদায়ী কাউন্সিলরের। বসন্ত উৎসবের একদিন আগে প্রাক্তন তৃণমূল কাউন্সিলরের এমন কান্ডে রীতিমতো শোরগোল বালুরঘাট শহরে। রবিবার সকাল থেকেই কপালে ও মুখে গেরুয়া আবির মেখে এলাকায় ঘুরতে থাকেন ওই তৃণমূল নেতা শঙ্কর দত্ত। শুধু তাই নয়, অনুগামীদের নিয়ে গেরুয়া আবির মেখে একটি ছবিও ফেসবুকে পোস্ট করেন বিদায়ী ওই কাউন্সিলর। যে ছবি মুহুর্তেই ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। যা প্রকাশ্যে আসতেই গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে গোটা শহরেই। সবুজ আবির ছেড়ে পুরভোটের আগে কেন তার কপালে গেরুয়া আবির উঠল তা নিয়েও জোর জল্পনা ছড়িয়েছে। যদিও দলবদলের আভাস দিতেই এমন কৌশল বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক মহল।

তৃণমূল পরিচালিত বিগত পৌরসভা বোর্ডের কাউন্সিলরের পাশাপাশি পূর্তদপ্তরের দায়িত্ব সামলেছিলেন শঙ্কর দত্ত। ৮ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা শঙ্কর দত্তের বিরুদ্ধে সেই সময় একাধিক দূর্নীতির অভিযোগও সামনে আসে। বিষয়টি নিয়ে কিছুটা ঘরে বাইরে চাপের মুখে পড়েন শঙ্করবাবু। ফলে সামনে পুরভোট এগিয়ে আসলেও নিজের প্রার্থীপদ নিয়ে নিশ্চিত নন ওই প্রাক্তন কাউন্সিলর। আর যার কারণেই নিজের পায়ের তলার মাটি শক্ত করতেই এমন চাল হতে পারে প্রাক্তন তৃণমূল কাউন্সিলরের বলেও মনে করছেন অনেকেই। দোলের এক দিন আগে রবিবার সাত সকালে গেরুয়া আবির মাখা তৃণমূল নেতার ওই ছবি ফেসবুকে পোস্টকে ঘিরেই তৈরি হয়েছে জোর গুঞ্জন।

সবুজ আবির ছেড়ে কেন গেরুয়া আবির ব্যবহার এই প্রশ্নের উত্তরে শঙ্কর দত্ত বলেন, একটি নাচের দল বেড়িয়েছিল। তাদের কিছু সদস্য তাঁকে রঙ দিয়েছে। যে ছবিই তিনি ফেসবুকে পোস্ট করেছেন। উৎসবের রঙ মেখেছেন তিনি। এখানে কোনও রাজনৈতিক দৃষ্টিকোণ আছে বলে তাঁর মনে হয় না।

বিষয়টি নিয়ে বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার জানিয়েছেন, পুরভোটের আগে শহর তৃণমূলে ব্যপক ভাঙন ধরাবেন তারা। বহু নেতা কর্মীরা ইতিমধ্যে তাদের সাথে যোগাযোগও শুরু করেছেন। সেই বদলানো মনোভাব থেকেই অনেকে এখন লাল ও সবুজ ছেড়ে গেরুয়াকে বেছে নিয়েছেন।