চোর সন্দেহে এক কিশোরের উপর অমানবিক অত্যাচার তৃণমূল নেতার! ভিডিও ভাইরাল

চোর সন্দেহ এক কিশোরকে অমানবিক মারধোরের অভিযোগ এক তৃণমূল (All India Trinamool Congress) নেতার বিরুদ্ধে ।ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুর জেলার করনদিঘি থানার লাহুতারা এলাকায়। অভিযুক্ত ব্যাক্তি ক্যামেরার সামনে কিছু না বললেও টেলিফোনে জানিয়েছেন, এলাকায় প্রতিদিন চুরির ঘটনা ঘটছিল। শুক্রবারও চুরি করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা হয়েছিল ওই কিশোরকে। এই ঘটনার যাতে পূনরাবৃত্তি না হয় সেই কারণে ওই কিশোরকে তিনি শাসন করেছেন।

করনদিঘি থানার পুলিশ জানিয়েছেন, ভিডিওটি (Viral Video) তাদের হাতে এসেছে। ঘটনার সত্যতা যাচাই করা হচ্ছে । যদিও এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছে শাসক দল তৃণমূলও। ঘটনায় জানা গেছে, শুক্রবার করনদিঘি থানার লাহুতারা (১) গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার দৌলতপুর মোড়ে এক মুদির দোকানে চুরি করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়ে সমীর আলী নামে এক কিশোর ।

সেখান থেকে সমীর আলীকে ধরে এনে দোকানের বারান্দায় বেঁধে বেধরক মারধোর করে এলাকার দাপুটে তৃনমূল কংগ্রেস নেতা ফজলুর রহমান নামের এক ব্যাক্তি। ফজলুরবাবুকে এবিষয়ে টেলিফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান , এলাকায় একাধিক চুরির ঘটনায় সমীর যুক্ত ছিল । এলাকায় বৈঠক করে তাকে সতর্ক করে দেবার পরও তার পরিবর্তন না হওয়ায় শুক্রবার তাকে শাসন করা হয়েছে । করনদিঘি থানার পুলিশ জানিয়েছে , ভিডিওটি তাদের হাতে এসেছে । ভিডিও-টির সতত্যা যাচাই করা হচ্ছে । তবে তাদের কাছে এবিষয়ে কোন অভিযোগ জমা পড়েনি ।

লাহুতাড়া গ্রামে কিশোরের উপর যে ধরনের শারিরিক অত্যাচার হয়েছে কোন সভ্য সমাজ একাজকে সমর্থন করে না । যারাই এই ঘটনার সংগে যুক্ত পুলিশ তাদের খুঁজে বের করে তার বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহনের দাবি করেছেন জেলা তৃনমূল কংগ্রেস নেতা অরিন্দম সরকার।