মুকুল রায়ের মাষ্টারস্ট্রোক! বিজেপিতে যোগ দিতে চলেছেন তৃণমূল ঘনিষ্ঠ বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়, উত্তেজনা তুঙ্গে।

কয়েক মাস আগে কলকাতা সহ গোটা রাজ্য উত্তাল হয়ে গিয়েছিল কলকাতা শহরের প্রাক্তন মেয়র শোভন -বৈশাখী -রত্না ত্রয়ী সম্পর্ক নিয়ে। এই বিষয়টি এতোটাই চর্চার মুখে পড়েছিল যে এই সম্পর্কের টানাপোড়েনের জেরে শোভন চট্টোপাধ্যায় কে বাধ্য হয়ে ছাড়তে হয়েছিল কলকাতা শহরের মেয়রের পদটি। আর তারপর থেকেই রাজ্যের শাসক দল সহ সমস্ত বিরোধীদের মুখে একটাই কথা বলতে শোনা যায় সেটা হল যে এবার কি তাহলে বিজেপিতে যোগদান করতে চলেছেন কলকাতা শহরের প্রাক্তন মেয়র তথা তৃণমূল কংগ্রেস নেতা শোভন চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু বিরোধী এবং অন্যান্যদের এই দাবি নাকচ করে বিজেপির তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে শোভন চট্টোপাধ্যায় নয় বরং তার ঘনিষ্ঠ বন্ধু বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় ধীরে ধীরে বিজেপির দিকে ঝুঁকে পড়ছেন। আর এই বিষয়ে নজর রেখেছে দিল্লি। আর সেই জন্যই বৈশাখীর কাছে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার প্রস্তাব পৌঁছে গিয়েছে দিল্লির তরফ থেকে।

বিশেষ সূত্রে জানা গিয়েছে যে আজ সকালে পশ্চিমবঙ্গ বিজেপি নেতা মুকুল রায় সরাসরি বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় কে ফোন করেন এবং আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির হয়ে প্রার্থী হিসাবে দাড়ানোর জন্য প্রস্তাব দেন। বেশ কয়েকদিন ধরে রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ দাবি করেছিলেন যে অপেক্ষা করুন এবার লোকসভা নির্বাচনে বড় চমক দিতে চলেছে রাজ্য বিজেপি। আর বিষেজ্ঞরা মনে করছেন যে বিজেপির হয়ে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় এর প্রার্থী হওয়ায় হচ্ছে বিজেপির অন্যতম চমক।

এই ব্যাপারে বিজেপি নেতা মুকুল রায় কে প্রশ্ন করা হলে উনি এই ব্যাপারে মুখ খুলতে নারাজ। সেইসাথে এই ব্যাপারটিকে সম্পূর্ণরূপে এড়িয়ে যান বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। তাকে এই ব্যাপারে কিছু জিজ্ঞাসা করা হলে উনি বলেন যে আমি এমন কিছু করব না যাতে শোভন চট্টোপাধ্যায় এর ক্ষতি হয়, শোভনের ভালোর কথা ভেবে আমি সিদ্ধান্ত নেব, এটুকু বলেই উনি এই বিষয়টিকে আর এগোতে দেন নি। তবে তৃণমূলের রাজ্য দপ্তরে এই বিষয়টি নিয়ে বেশ চর্চা চলছে এই মুহূর্তে।

তবে এই ব্যাপার নিয়ে প্রাক্তন মেয়র এর ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা গিয়েছে যে এই মুহূর্তে বিভিন্ন তৃণমূল নেতা সরব হয়েছেন এই ব্যাপারটি নিয়ে এবং তারা বারেবারে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে গিয়ে আলোচনা সারছে।
#অগ্নিপুত্র

Related Articles