দায়িত্বে অবিচল কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েও করছেন কাজ

জানুয়ারি মাসের ১১ তারিখে একটি সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শ্রীপদ নায়েক। সেই দুর্ঘটনাতেই আহত হয়ে প্রাণ হারান ওনার স্ত্রী। ওই দুর্ঘটনা কর্ণাটকের উত্তর কন্নড় জেলা অকোলায় হয়। দুর্ঘটনার সময় শ্রীপদ নায়েক ওনার স্ত্রীর সাথে গোকরণ যাচ্ছিলেন। শোনা যায় যে, শ্রীপদ নায়েকের স্ত্রী দুর্ঘটনার পর জ্ঞান হারান আর অনেকক্ষণ ওনার জ্ঞান আসে না। হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা ওনাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

শ্রীপদ নায়েককে এরপর গোয়ার একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী গোয়ার মুখ্যমন্ত্রীকে ফোন করে শ্রীপদ নায়েকের চিকিৎসার জন্য সমস্ত বন্দোবস্ত করার কথা বলেছিলেন।

মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শ্রীপদ নায়েক বলে, এখন তিনি আগের থেকে অনেকটা ভালো আছেন আর আগামী চার-পাঁচ দিনের মধ্যে ওনাকে গোয়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে ছুটি দেওয়া হবে। তিনি বলেন, ভগবান শ্রীকৃষ্ণের অশেষ কৃপায় আর সবার আশীর্বাদে ওনার শারীরিক অবস্থা এখন অনেক ভালো।

উনি বলেন, ‘আমি অনেকদিন পর এই দিন দেখছি। আমি সবার কাছে আবেদন করছি যে, তাঁরা আমাকে দেখার জন্য যেন হাসপাতালে এসে ভিড় না জমান। আমি চার-পাঁচ দিনের মধ্যে ছুটি পেয়ে যাব, তখন সবার সাথে সাক্ষাৎ করব।” নায়েক নিজের শুভাকাঙ্খিদের আবেদন করে বলেন যে, তাঁরা যেন হাসপাতালে না এসে বাড়িতে বসেই তাঁর সুস্থতার কামনা করে।

তবে হাসপাতালের বেডে শুয়ে থাকলেও কাজে অবিচল কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভাইরাল হওয়া ছবিতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শ্রীপদ নায়েককে হাসপাতালের বেডে শুয়ে শুয়ে জরুরী কাগজে সই করতে দেখা যাচ্ছে। ওনার এই ছবি ভাইরাল হতে চারিদিকে ওনার প্রশংসা হচ্ছে।

Related Articles