দিলীপ ঘোষকে আটকে দিল মমতার পুলিশ! আমফান নিয়ে রাজনীতি করার অভিযোগ বিজেপির

আমফানে রাজনীতি ভুলে সবাইকে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর দাক দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী (Mamata Banerjee)। তবুও রাজনীতি মুক্ত নয় এই দুর্যোগ। আমফানে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার পরিদর্শনে গিয়ে আটক হলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা মেদিনীপুরের সাংসদ দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। উনি কলকাতা থেকে বারুইপুর, ক্যানিং আর বাসন্তি এলাকায় ঝড়ের সমীক্ষা করার জন্য যাচ্ছিলেন। কিন্তু যাওয়ার সময় ওনাকে পাটুলি ব্রিজের সামনে আটকে দেয় কলকাতা পুলিশ।

বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্টও করেছেন। একদিকে ঝড় আসার আগেই নবান্ন থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী বলেছিলেন, এই প্রাকৃতিক দুর্যোগের সময় আমাদের সবাইকে এক হয়ে কাজ করতে হবে, মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। কিন্তু উনি মুখে বললেও খাতা কলমে যে বিরোধীদের একসাথে নিয়ে চলা হচ্ছে না সেটা আজকের ঘটনা দেখে বোঝাই যাচ্ছে।

গতকাল আমফান ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার পরিদর্শনে এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেখানে তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর সাথে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা গুলো হেলিকপ্টারে করে ঘুরে পরিদর্শন করেন। আর এরপর একটি সাংবাদিক বৈঠকে উনি রাজ্যকে ১ হাজার কোটি টাকা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন।

উনি ওই বৈঠকে বলেন, এই দুর্যোগে কেন্দ্র আর রাজ্য সরকার একযোগে কাজ করছে। এমনকি এই দুর্যোগ মোকাবিলায় উনি মমতা ব্যানার্জীর প্রশংসাও করেন। কিন্তু এই ঘটনার ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই আমফান নিয়ে রাজনৈতিক তরজা সামনে এলো।

দিলীপ ঘোষের গাড়ি আটকানোর পর বিজেপির তরফ থেকে মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে আমফান নিয়ে রাজনীতি করার অভিযোগ করা হয়েছে। আপাতত দুই ঘণ্টা ধরে দিলীপ ঘোষের কনভয় আটকে রেখেছে পুলিশ।