খাসির মাংস না খাওয়ানোয় স্বামীর গায়ে গরম জল ঢেলে দিলো স্ত্রী

খাসির মাংস না আনায় স্বামীর গায়ে গরম ফ্যান ঢেলে দিল স্ত্রী। দীর্ঘদিন ধরেই এমনিতেই দাম্পত্য কলহ চলছিল স্বামীর স্ত্রী সঙ্গে। গত 2 সেপ্টেম্বর সেই অশান্তি চরম আকার নেয়।বাজার থেকে খাসির মাংস আনতে বলে স্ত্রী। সেইদিন মাংস না আনায় তার গায়ে ভাতের গরম ফ্যান ঢেলে দেয় বলে অভিযোগ। তাতেই আহত হয় স্বামী বিকাশ ক্ষেত্রপাল। তারপর তাকে বৈঁচি গ্রাম উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যায়। এর পরও স্ত্রী পরিবার তাদের বাড়িতে চড়াও হয় হুমকি দেয় স্বামীকে। তাই রবিবার স্ত্রীর মনিমালার বিরুদ্ধে পাণ্ডুয়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন বিকাশের আত্মীয়রা। তবে এবিষয়ে স্ত্রীর পরিবার মুখ খুলতে চায়নি।

ঘটনাটি পান্ডুয়া থানার বৈঁচিগ্রাম পীরতলা এলাকায়। ঘটনার সূত্রপাত গত বুধবার দুপুরে ৷ স্ত্রী রান্না করার সময় স্বামীকে খাসির মাংস আনার কথা বলে। স্বামী পরেরদিন আনার কথা বললে দু’পক্ষের মধ্যে শুরু হয় বচসা। এরপর স্ত্রী মনিমালা গালিগালাজ করলে সেই সময় বিকাশ তার স্ত্রীকে মারধর করে।সন্তানকেও মারধর করে ৷ এর প্রতিবাদ করলে গায়ে গরম ভাতের ফ্যান ঢেলে দেয় স্ত্রী।

বেশ কয়েকবার স্বামী-স্ত্রী দুপক্ষের মধ্যে মাঝে মধ্যেই অশান্তি হত। বিকাশের শরীরের বেশ কিছুটা অংশ পুড়ে যায়। চিকিৎসকরা তাঁকে চুঁচুড়া হাসপাতালে স্থানান্তরিত করেছিল। এরপরে বুধবার পান্ডুয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করে বিকাশের পরিবার। বিকাশ সোনা পালিশের কাজ করে। লকডাউনের সময় বাড়ি ফিরেছে।

Related Articles