fbpx
দেশভারতীয় সেনা

পাকিস্তান ও চীনের ঘুম উড়াতে এবার সুখোই যুদ্ধ বিমানে যুক্ত হচ্ছে স্পাইস বোমা। এরফলে বায়ুসেনার শক্তি দ্বিগুণ বৃদ্ধি পাবে।

পুলওয়ামা জঙ্গী হানার ঘটনা নিয়ে উত্তাল গোটা দেশ। জঙ্গীহানার ঘটনায় শহীদ জওয়ানদের প্রতিশোধ নিতেই ভারত হামলার বারো দিনের মাথায় পাকিস্তানে এয়ার স্ট্রাইক করে ভারতীয় বায়ুসেনা। মিরাজ-২০০০ যুদ্ধ বিমান থেকে স্পাইস বোমা ফেলেই পাকিস্তানের জঙ্গী গোষ্ঠী জইশ সংগঠন গুঁড়িয়ে দেয় ভারতীয় বায়ুসেনারা। আর তারপর থেকেই দফায় দফায় ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে বোমা ও গুলি বর্ষণ হয়। ভারত-পাকিস্থান আন্তর্জাতিক সম্পর্কের ভীত নড়বড়ে হয়। তবে প্রথমবার মিরাজ বিমানের সঙ্গে ব্যবহৃত স্পাইস-২০০০ বোমাকে এবার সুখোই যুদ্ধ বিমানের সঙ্গে যুক্ত করতে চলেছে ভারত। তবে ভারতের কেন এমন সিদ্ধান্ত, এই প্রশ্নের জবাবে এক সরকারি সূত্র মারফত্ জানা গিয়েছে বালাকোট হামলার স্পাইস বোমা বিস্ফোরণের ফলে যে সাফল্য মিলেছে তার থেকেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

পাশাপাশি, ভারতীয় বায়ুসেনাদের শক্তি বৃদ্ধি করার জন্যও এমন পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে বলে সূত্র মারফত্ দাবি। ভারত সরকার গত বছর থেকে এই নিয়ে দুবার সার্জিক্যাল স্ট্রাইক হয়েছে। কিন্তু প্রথম বারের তুলনায় দ্বিতীয় বারের সার্জিক্যাল স্ট্রাইক বেশি জোড়ালো ছিল তা সকলেরই জানা। আর এই স্ট্রাইকের ফলেই ভারতের জম্মু-কাশ্মীর সীমান্ত নিয়ে উত্তেজনা চরমে পৌঁছেছে। তাই ভারতীয় আকাশে প্রায় কুড়িটির বেশি যুদ্ধ বিমান প্রবেশ করে এই সময়ে। আর পাকিস্তানের সেই সমস্ত যুদ্ধ বিমানকে ধ্বংস করার পরিকল্পনা নিয়ে ভারতও পাল্টা জবাব দেওয়া শুরু করে। পাকিস্তান জেট ফাইটারকে তাড়া করতে শুরু করে ভারতীয় বায়ুসেনারা। তিনটি শক্তিশালী পাকিস্তানি এফ-১৬ যুদ্ধ বিমানকে ধ্বংস করতে চাইলে একটিকে গুঁড়িয়ে দেয় বায়ুসেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান।

আর তারপরই পাকিস্তানের হাতে ধরা পড়ে যান অভিনন্দন। যদিও এখন তিনি সম্পূর্ণ বিপদ মুক্ত। তবে অভিনন্দন বর্তমানকে ছেড়ে দেওয়া নিয়েও কম জলঘোলা হয়নি। কূটনীতির চাপ ও জেনেভা কনভেনশনের জেরে এবং ভারতের চাপের ফলেই অভিনন্দনকে ছাড়তে বাধ্য হয় পাক সরকার। নিয়ন্ত্রণ রেখার পরিস্থিতির জেরে প্রতিদিন পাকিস্তান থেকে ভারতকে আক্রমন করার চেষ্টা চলছে। ওই সরকারি সূত্রের দাবি পাকিস্তানকে চাপে রাখতেই এরপর থেকে সুখোই যুদ্ধবিমানে স্পাইস বোমা যুক্ত করবে ভারত সরকার। ওই সরকারি সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, বর্তমানে মিরাজ ছাড়া কোনো যুদ্ধ বিমানই স্পাইস বোমা নিয়ে হামলা চালাতে পারবেনা। তাই স্পাইস বোমা যুক্ত করতে পারলে যে ভারতের বায়ুসেনাদের সুরক্ষা অনেকাংশে সুনিশ্চিত হবে এবং শক্তি বাড়বে তা বলাই বাহুল্য।

আর সেই জন্য মোদি সরকার দেশের এবং সেনা জওয়ানদের সুরক্ষার জন্য একের পর এক বড় বড় সিদ্ধান্ত নিয়ে চলেছেন আর মোদী সরকারের এমন সিদ্ধান্তে জেরে দিনের পর দিন চাপ বাড়ছে পাকিস্তানের উপর। সেই সাথে চাপ পারছে চীনের উপরেও।

Close