মোদী বিরোধিতায় নিজেকে পাকিস্তানি বললেন কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরী

নাগরিকতা সংশোধন আইন (CAA) নিয়ে বিজেপির (BJP) আর কংগ্রেসের (Congress) মধ্যে বিবাদ চলছেই। আর এরই মধ্যে কংগ্রেসের লোকসভায় নেতা তথা বহরমপুরের সাংসদ অধীর চৌধুরীর (Adhir Chowdhury) বয়ান নিয়ে রাজনৈতিক আবহাওয়া আরও গরম হয়েছে। রাজ্যের বসিরহাটে কংগ্রেসের একটি জনসভায় অধীর চৌধুরী বলেন, ‘হ্যা আমি পাকিস্তানি। মোদী-শাহ যা করার করে নিক।”

কংগ্রেসের নেতা বলেন, আমাকে পাকিস্তানি বলে ডাকা হয়। আমি আজ বলতে চাইছি যে আমি পাকিস্তানি। আপনাদের কিছু করার থাকলে করে নিন। এখানে হ্যাঁ কে হ্যাঁ বলা বড় বিপদজনক। দিল্লীতে বসা নেতারা যা বলবেন, সেটাই আমাদের মেনে নিতে হবে। নাহলে আমাদের দেশদ্রোহী বলা হবে। অধীর চৌধুরী আরও বলেন, ‘ আজ আমরা কোথায় আছি? আমাদের সেটাই করতে বলা হয়, যেটা নরেন্দ্র মোদী আর অমিত শাহ বলেন। এটা আমি স্বীকার করে নিতে পারব না। এই দেশ নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহ এর বাপের না। ভারত কারও বাপের সম্পত্তি না। এটা ওই দুজনকে বুঝতে হবে। ওনারা আজ আছে, কাল নাও থাকতে পারেন।”

এর আগে উনি জঙ্গিদের সাথে কাশ্মীরের ডিএসপি দেবিন্দর সিংকে নিয়ে বয়ান দেন। কংগ্রেস নেতা বলেন, যদি দেবিন্দর সিং এর নাম দেবিন্দর খান হত, তাহলে RSS এর ট্রল আর্মি এই ইস্যু নিয়ে কত কিছু করে দিত। অধীর চৌধুরীর এই বয়ান নিয়ে অনেক হাঙ্গামা হয়। আর এরপর কংগ্রেস নিজেকে অধীর চৌধুরীর এই বয়ান ব্যাক্তিগত বলে আলাদা করে নেয়।