ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার জন্য আপনাকে মূল্য চোকাতে হবে! তাণ্ডব টিমকে হুঁশিয়ারি যোগীর

সইফ আলী খানের নতুন ওয়েব সিরিজ তাণ্ডব নিয়ে চরম বিতর্ক শুরু হয়েছে। হিন্দু ধর্মে আঘাত করা অভিযোগ তুলে চারিদিক থেকে এই ওয়েব সিরিজ ব্যান করার দাবি তোলা হচ্ছে। চারিদিকে বিতর্ক সৃষ্টি হওয়ার পর পরিচালক আলী আব্বাস জাফর একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে ক্ষমাও চেয়ে নিয়েছেন। যদিও এই ক্ষমা চাওয়ার পর বিতর্ক বিন্দুমাত্র থামেনি।

বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতও এই ওয়েব সিরিজ নিয়ে মুখ খুলেছেন। তিনি একটি ট্যুইট করে বলেছেন, ‘সমস্যা হিন্দু ফোবিক বিষয়বস্তু নিয়ে নয়। বরং এটি গঠনমূলকভাবেও খারাপ। আপত্তিজনক এবং বিতর্কিত দৃশ্যগুলি প্রতিটি স্তরে রাখা হয়েছে। সেটিও ইচ্ছাকৃতভাবে। দর্শকদের উপর নির্যাতন ও অপরাধমূলক অভিপ্রায়ের জন্য তাকে জেলে ঢোকানো উচিৎ।”

কঙ্গনা আরেকটি ট্যুইট করে বলেছেন, ‘ক্ষমা চাওয়ার জন্য বাঁচবে নাকি? ওঁরা সোজা মাথা কেটে দেয়, জিহাদি দেশ গুলো ফতোয়া জারি করে। লিবারেল মিডিয়া ভার্চুয়াল ভাবে লিঞ্চিং করে দেয়, তোমাদের শুধু প্রাণেই মারবে না ওঁরা, সেটিকে জাস্টিফাইও করা হবে। এবার বলো আলী আব্বাস জফর, আল্লাহকে এরকম মজা করার হিম্মত আছে?”

এবার উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর নাম উঠে আসছে তাণ্ডবের প্রতিবাদে। উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর মুখাপাত্র সলভ মণি ত্রিপাঠি একটি ট্যুইট করে তাণ্ডব নেতাদের চরম হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, প্রস্তুত থাকুন ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার জন্য আপনাকে মূল্য চোকাতে হবে।

श्रीमान @Mdzeeshanayyub @aliabbaszafar @iHimanshuMehra @_gauravsolanki व सैफ अली

UP पुलिस मुंबई निकल चुकी है,वो भी गाड़ी से,FIR में मजबूत धाराएं लगी हैं,तैयार रहना,धार्मिक भावनाओं को आहत करने की कीमत तो चुकानी ही पड़ेगी।

श्री @OfficeofUT जी,उम्मीद है आप इनके बचाव में ना आएंगे pic.twitter.com/B1hXb57dMW

— Shalabh Mani Tripathi (@shalabhmani) January 18, 2021

উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের মুখাপাত্র সলভ মণি ত্রিপাঠি ট্যুইট করে লেখেন, ‘উত্তর প্রদেশ পুলিশ মুম্বাইয়ের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছে। তাও আবার গাড়ি নিয়ে। কড়া ধারায় FIR করা হয়েছে। প্রস্তুত থাকু, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার জন্য আপনাকে মূল্য চোকাতে হবে।” এরপর তিনি মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর অফিসকে ট্যাগ করে তিনি লেখেন, ‘আশা করি আপনি এই কাজে দখল দেবন না।”

Related Articles